মালচিং পদ্ধতিতে মরিচ চাষ - বর্ষাকালীন মরিচ চাষ, বীজের দাম

 মালচিং পদ্ধতিতে মরিচ চাষ সম্পর্কে জানতে চান। আপনি যদি মরিচের ফসল করতে চান তাহলে আপনাকে সবার প্রথম কিভাবে মরিচের ভালো চারা বাছাই করা হয় তা জানতে হবে। তাহলে আপনি সঠিকভাবে সেই ফসলটি করতে পারবেন। এবং এর পাশাপাশি মালচিং পদ্ধতিতে মরিচ চাষ সম্পর্কে জানতে হবে। চলুন সেই সম্পর্কে জেনে নেই।

কিভাবে মরিচের ভালো চারা বাছাই করা হয়এছাড়াও আমরা এই আর্টিকেলে আপনাদের জন্য, মালচিং পদ্ধতিতে মরিচ চাষ এর নিয়ম এবং কোন সময় কোন মরিচের চাষ ভালো হয় তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব। অর্থাৎ আর কথা না বাড়িয়ে চলুন জেনে নেই।

পোস্ট সূচীপত্রঃ মালচিং পদ্ধতিতে মরিচ চাষ - বর্ষাকালীন মরিচ চাষ, বীজের দাম

মরিচের বীজ থেকে চারা উৎপাদন

আমরা যদি মরিচের ফসল চাষ করতে চাই তাহলে আমাদেরকেও প্রথমে মরিচের চারার প্রয়োজন হবে এজন্য আমাদের প্রথমে মরিচের চারা সংগ্রহ করতে হবে। এছাড়াও আমরা বাড়িতে নিজেরাই মরিচের বীজ থেকে চারা উৎপাদন করে মরিচের চারা রোপণ করতে পারবো। চলুন আজকে আপনাদের মরিচের বীজ থেকে চারা করার নিয়মগুলো জানিয়ে দিব। চলুন জেনে নেই

প্রথমে আমাদেরকে মরিচের বীজ সংগ্রহ করতে হবে। তারপরে যে জায়গায় আমরা মরিচের বীজ চাষ করবো সে জায়গা টির মাটি ভালো করে চাষ করে নেব। এরপর মাটিতে গোবর ও কিছু পরিমাণ মতো সার মিশিয়ে নেব তারপরে চাষ করা হয়ে গেলে মাটিতে মরিচের বীজ লাইন করে অথবা হাত দিয়ে ছিটিয়ে দিতে হবে তারপরে সেই মরিচের বীজ গুলো সামান্য পরিমাণ মাটি দিয়ে ঢেকে দিতে হবে।

এরপরে সেই মাটির উপর আউর অথবা কলার পাতা দিয়ে ঢাকতে হবে। তারপর প্রতিদিন দিনে দুইবার পরিমাণ মোতাবেক পানি দিতে হবে। এরপরে যখন সেই বীজ থেকে মরিচের চারা তৈরি হবে তখন আমরা আরো অথবা যে কলার পাতা দিয়ে ঢেকে ছিলাম সেই পাতাগুলো সরিয়ে ফেলতে হবে। এবং সঠিকভাবে মরিচের চারা গুলোর পরিচর্যা করতে হবে।

কিভাবে মরিচের ভালো চারা বাছাই করা হয়

  • আপনি যদি মরিচের আবাদ করতে চান তাহলে আপনাকে সর্বপ্রথম মরিচের চারা প্রয়োজন হবে। এবং আপনাকে এ চারাটি সংগ্রহ করতে হবে। সংগ্রহ করার সময় আপনাকে কিভাবে মরিচের ভালো চারা বাছাই করা হয় তা আপনাকে জানতে হবে। চলুন কিভাবে আপনারা মরিচের ভালো চারা চিনতে পারবেন তার কিছু উপায় আপনাদেরকে জানাই। জানার জন্য নিচে পড়ুন
  • মরিচের চারা কেনার সময় দেখে নিতে হবে যে চারার বয়স অনেক বেশি কিনা। কারণ বয়স বেশি চারা রোপন করলে মরিচ খুব একটা ভালো হয় না।
  • মরিচের চারা সংগ্রহ করার সময় দেখে নিতে হবে যে মরিচের গাছটি কোঁকড়া এবং বেকা কিনা।
  • মরিচের চারা সংগ্রহ করার সময় পুষ্ঠ এবং মোটা দেখে নিতে হবে।
  • চিকন চারা রোপন করা যাবে না কারন এই চারা গুলো বড় হতে এবং বৃদ্ধি পেতে অনেক সময় লেগে যায়।
  • মরিচের চারা সংগ্রহ করার সময় দেখে নিতে হবে যে চারার গোরাতে ভালো পরিমাণে শিকড় আছে কিনা।
  • এছাড়াও খুবই গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে যে দেখে নিতে হবে যে চারার গায়ে কোন পচনের অর্থাৎ প্রচার কোন দাগ আছে কিনা।

মালচিং পদ্ধতিতে মরিচ চাষ

মালচিং পদ্ধতিতে মরিচ চাষ করতে আমরা জানি না। তাই আজ আমরা আপনাদেরকে মালচিং পদ্ধতিতে কিভাবে মরিচ চাষ করতে হয় তা আপনাদেরকে জানাবো।

মালচিং পদ্ধতি মূলত সবজির খেত, বেডের জমি, এবং গাছপালার গোড়া ইত্যাদি অনেক বস্তু দিয়ে বিভিন্ন পদ্ধতিতে ঢেকে দেওয়াকে মালচিং পদ্ধতি বলে। আমরা যেমন মার্জিন পদ্ধতিতে মরিচের খেতে চাষ করার জন্য প্রথমে আমাদেরকে বেড করতে হবে এবং সেটিকে পলিথিন অথবা আউর এবং বিভিন্ন গাছের পাতা দিয়ে ঢেকে দিতে হবে এরপরে জায়গায় পরিমাণ মতো মরিচের গাছ লাগানো এবং যে জায়গায় লাগানো করবে সেই জায়গাটুকু একটু বেশি পরিমাণে কেটে নেব। যাতে করে সেই জায়গা দিয়ে আমরা মরিচের গাছের গোড়ায় পানি প্রবেশ করাতে পারি। মালচিং পদ্ধতিতে মরিচ চাষের পদ্ধতি গুলো নিম্নে উল্লেখ করা হলোঃ

মাটির মান ও পরিষ্কারতাঃ মরিচের জন্য যে মাটি উপযুক্ত তা হলো ভালো ড্রেনেজ সুবিধা থাকা মাটি। সমান্য পরিমাণে কমপক্ষে কোমল কমপক্ষে মাটি অত্যন্ত ভালো।
উচ্চতা ও সূর্যের আলোঃ মরিচের বাগান সমৃদ্ধ সূর্যের আলো পাওয়া উচিত। উচ্চতা সাধারণত ২৫ থেকে ৩০ সেমি হতে পারে।
বীজ বা প্রবীজ নির্বাচনঃ ভালো গুণগত ও প্রতিস্থানীয় প্রজাতির মরিচের বীজ বা প্রবীজ বাছাই করা উচিত।
রোপণ বা প্রবীজ প্রাকৃতিক বা স্থাপনঃ স্থাপন বা প্রবীজ প্রাকৃতিকভাবে বা স্থাপন করে মরিচ চাষ করা হয়।
পোষক মাটিঃ মরিচের জন্য পোষকতা প্রদানে সুত্রের মাধ্যমে সঠিক মাটি প্রয়োজন।
পানি সরবরাহঃ  সম্পূর্ণ চাষাবাদের জন্য প্রয়োজনীয় পরিমাণ পানি সরবরাহ করা উচিত, যাতে প্রয়োজনীয় সামগ্রী সঠিকভাবে গোলাপী হয়।
সঠিক পরিচর্যাঃ মরিচের চাষের সময়ে নিরাপদ প্রয়োজন। সঠিক সময়ে উঁচু করে তৈরি বাগান প্রদান করা উচিত এবং রোপণের পরে যত্নশীলতা মেনে চলা উচিত।

এই ধাপগুলি অনুসরণ করে মালচিং পদ্ধতিতে মরিচ চাষ করা হয়। যদিও স্থাপন এবং সেচ এই ধাপগুলি বিভিন্ন জায়গায় ভিন্ন হতে পারে। এভাবে আমরা মালচিং পদ্ধতিতে মরিচের গাছ ও মরিচের চাষ করতে পারি। মালচিং পদ্ধতিতে মরিচের চাষের সুবিধা হচ্ছে, জমিতে ঘাস কম হবে, আদ্রতা ঠিক থাকবে, এবং সূর্যের তাপ কম লাগবে, এছাড়াও মরিচের গাছ তার পরিমাণ মোতাবেক পানি ধরে রাখতে পারবে।

মরিচের বীজের দাম ২০২৪

মরিচের বীজ
দাম
জিয়া
১০০০ চারা ২০০০ টাকা
মেহেরপুরি
১০০০ চারা ১৮০০ টাকা
হাইব্রিড
১০০০ চারা ২০০০ টাকা
হাইব্রিড বিজলী প্লাস
১০০০ চারা ১৯৫০টাকা

এই সকল মরিচের চারা গুলো কিনতে চাইলে যোগাযোগ করুন। যোগাযোগ করতে কমেন্ট বক্সে লিখুন।

বর্ষাকালীন মরিচ চাষ

বর্ষাকালে আমরা সকলে মরিচের ফসল করতে পারি না এবং পানির ফলে অনেক জাত আছে যেগুলো নষ্ট হয়ে যায়। আজ আমরা আপনাদের এমন একটি জাতির কথা বলব যে জাতটি আপনারা বর্ষাকালে চাষ করে ভালো পরিমাণে লাভ করতে পারবেন। তাহলে চলুন দেরি না করে জেনে নেই। বর্ষাকালে আমরা সকলেই মরিচের গাছ টিকিয়ে রাখতে পারি না। কারণ সে সময় অনেক মরিচের জাত পানি সহ্য করতে পারেনা। এবং সঠিকভাবে ফসলে কারবার না করতে পারার জন্য। বর্ষাকালীন মরিচ চাষ করার জন্য আমরা বিজলী টুয়েন্টি চারা রোপন করব। কারন এটি খুবই দীর্ঘমেয়াদী ও অনেক ফলন দিয়ে থাকে।

মালচিং পদ্ধতিতে মরিচ চাষ - বর্ষাকালীন মরিচ চাষ, বীজের দাম

এবং আপনাকে এ সময় মরিচের বেড স্বাভাবিকের পরিমাণ থেকে অনেকটা উঁচু করতে হবে। এবং পানি নামার লাইনগুলো সব সময় ক্লিয়ার রাখতে হবে। যাতে করে পানি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে জমি থেকে পানি দ্রুত নিষ্কাশন হয়ে যায় সেই দিকে আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে। এবং এমন মরিচের জাত লাগাতে হবে যেটি অতিরিক্ত পানি কিছুক্ষণ যাবৎ সহ্য করতে সক্ষম হবে। বর্ষাকালীন মরিচ চাষ করা একটি গুরুত্বপূর্ণ কৃষি কাজ। বর্ষাকালীন মরিচ চাষে আমাদের কিছু গুরুত্বপূর্ণ সময় মেয়াদ মেনে চলতে হয়। যেমন মরিচের বীজ বোনানোর জন্য সঠিক তাপমাত্রা এবং পর্যাপ্ত আলো-পরিচ্ছদ প্রয়োজন হয়। বীজ বোনানোর পরে মরিচের সাথে পরিচ্ছন্নতা, সঠিক সারের প্রয়োগ, পরিমাণিত পানি প্রয়োজন হয় যাতে একটি সুস্থ ও উন্নত ফসল উৎপন্ন হতে পারে।

বর্ষাকালীন মরিচের জাত

বর্ষাকালীন মরিচের জাতের নাম গুলো হচ্ছেঃ

  • বিজলী প্লাস
  • বিজলি বিজলী টুয়েন্টি টুয়েন্টি
  • বিজলি হাইব্রিড
  • হাইব্রিড
  • গোল মিষ্টি মরিচ
  • গোল ঝালমরিচ
  • মেহেরপুরি
  • জিয়া

কিছু মন্তব্য | মালচিং পদ্ধতিতে মরিচ চাষ

প্রিয় পাঠক, আপনারা এতক্ষণে নিশ্চয়ই জানতে পেরেছেন যে মালচিং পদ্ধতিতে মরিচ চাষ এবং কিভাবে আপনারা চাষ করবেন এছাড়াও মরিচের বীজের দাম ও কোন সময় কোন মরিচ করলে ভালো হবে তা আশা করি বুঝতে পেরেছেন। আমাদের সকলেরই উচিত যখন আমরা মরিচের চারা সংগ্রহ করবো তখন আমাদের খুব সচেতন এর সঙ্গে চারাগুলো সংগ্রহ করতে হবে। কারণ আমরা যদি সেই চারা গুলো ভালোভাবে বাছাই না করি তাহলে আমাদেরকে অনেক সমস্যার মুখে পড়তে হবে। এবং আমাদেরকে কোন সময় কোন জাতের মরিচ চাষ করা ভালো হয় তা বিস্তারিত জেনে আমরা সঠিক নিয়মে সঠিকভাবে মরিচ চাষ করবো।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

আরাবি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url